January 23, 2018

শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে জেলা পর্যায়ে জয়িতা সম্মাননা পেলেন মোসাম্মৎ রিপা বেগম

R 2 copyসিলেট প্রতিনিধি : মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয় এর উদ্যোগে সমগ্র দেশব্যাপী পরিচালিত জয়িতা অন্বেষণে বাংলাদেশ শীর্ষক বিশেষ কার্যক্রমের আওতায় শিক্ষা ও চাকুরী ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী নারী ক্যাটাগরিতে জেলা পর্যায়ে জয়িতা সম্মাননা লাভ করেছেন মোসাম্মৎ রিপা বেগম। গতকাল শনিবার আর্ন্তজাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকিয়া দিবস উপলক্ষ্যে সিলেট জেলা প্রশাসন আয়োজিত জয়িতা সম্মাননা, আলোচনা সভা ও পুরুস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে তিনি এ সম্মাননা লাভ করেন।বিশ্বনাথ উপজেলার জগৎপুর পীর বাড়ির মোঃ কবির মিয়া ও মোছাঃ পিয়ারা বেগম দম্পত্তির মেয়ে মোসাম্মৎ রিপা বেগম তার কর্মের স্বীকৃতি স্বরূপ এ সম্মাননা লাভ করেন। তিনি যুব উন্নয়ন থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে ২০০৫ সালে প্রথম মহিলা উদ্দ্যোক্তা হিসেবে রুপসী বাংলা লেডিস টেইলার্স এন্ড বুটিকস-১ নামে একটি প্রতিষ্ঠান শুরু করেন। সেখান থেকে ক্রমান্বয়ে ২০১৪ সালে রুপসী বাংলা লেডিস টেইলার্স এন্ড বুটিকস-২ নামে আরেকটি প্রতিষ্ঠান শুরু করেন। তার এসব প্রতিষ্ঠানে অসহায় দরিদ্র পরিবারের মেয়েরা প্রশিক্ষন গ্রহন করে নিজের জীবন পরিচালনা করতে পারছে। তিনি ২০১৩ থেকে একটি কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্রের প্রশিক্ষক ও ব্যবস্থাপক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। পাশপাশি সেলাই প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রশিক্ষক হিসেবেও কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। তার ৩টি প্রতিষ্ঠানে ২০ জন কর্মচারী কাজ করছেন। এতে ৩ জন প্রতিবন্ধী ও কর্মরত রয়েছেন। যে নারী টাকার অভাবে লেখাপড়া করতে পারেনি, সেই নারী নিজে প্রশিক্ষিত হয়ে নিজের পাশাপাশি পরিবারের ভাই বোনদের লেখাপড়া শিখিয়ে কর্মক্ষম করে তুলেছেন। তার এক ভাই এক বোন অনার্সে, এক বোন মাস্টার্স ফাইনাল পর্বে এবং ছোট ভাই লিডিং ইউনিভার্সিটিতে অধ্যয়নরত রয়েছে। রিপা বেগম জগৎপুর নিয়ামতপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে প্রাথমিক শিক্ষা, দেওকলস উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি, জগন্নাথপুর ডিগ্রী কলেজ থেকে এইচএসসি, দক্ষিণ সুরমা ডিগ্রী কলেজ থেকে বিএ, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিএড, এমসি কলেজ থেকে এম.এ এবং সিলেট ল কলেজ থেকে এল.এল.বি সম্পন্ন করে নিজের প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে যাচ্ছেন। তিনি নিজের অর্জিত শিক্ষাকে কাজে লাগিয়ে একজন নারী হয়েও সমাজকে কিছু দেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তার কর্মের স্বীকৃতি স্বরূপ সিলেট জেলা এবং দক্ষিণ সুরমা উপজেলা পর্যায়ে এ সম্মাননা লাভ করেছেন। আগামীর স্বপ্নের সফল বাস্তবায়নে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

সর্বশেষ সংবাদ