January 23, 2018

‘যুবরাজ’ এর সিংহাসন নিশ্চিত হচ্ছে আজই!

 rahul-bg20171204120356

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: অনেকটা নীরবে নিভৃতেই ভারতীয় রাজনীতির গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়ের সূচনা হতে যাচ্ছে আজ। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) দিনের আলো ফুরোনোর আগেই নিশ্চিত হয়ে যেতে পারে ‘যুবরাজ’ এর সিংহাসন প্রাপ্তির। এর পর শুধু অপেক্ষা অভিষেকের আনুষ্ঠানিকতার। হ্যাঁ, কথা হচ্ছে কংগ্রেসের সহসভাপতি রাহুল গান্ধীকে নিয়ে, ভারতীয় রাজনীতিতে যিনি অভিহিত হন ‘যুবরাজ’ হিসেবেই। সব কিছু ঠিক থাকলে অনানুষ্ঠানিকভাবে আজই কংগ্রেসের বর্তমান সভাপতি তার মা সোনিয়া গান্ধীর জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হতে যাচ্ছেন ইন্দিরা গান্ধীর নাতি এবং রাজীব গান্ধীর পুত্র রাহুল গান্ধী। সর্বভারতীয় কংগ্রেসের সভাপতি নির্বাচনে সোমবার মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ দিন। আর এখন পর্যন্ত ওই পদে রাহুল গান্ধী ছাড়া কারও পক্ষে মনোনয়ন পত্র জমাই পড়েনি। দিনের বাকি যে কয়েক ঘণ্টা আছে, সে সময়ের মধ্যে কারও মনোনয়নপত্র জমা পড়বে সে সম্ভাবনা কাগজে কলমে থাকলেও বাস্তবতায় নেই বললেই চলে। দিনে মধ্যে যদি আর কোনো মনোনয়নপত্র জমা না পড়ে তাহলে আজই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় কংগ্রেসের সভাপতি হতে যাচ্ছেন রাহুল গান্ধী। বিশ্বের সবচেয়ে ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক পরিবার গান্ধী পরিবারের সদস্য রাহুল গান্ধী। যার পিতা, দাদি, এবং দাদির পিতা তিনজনই ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল গণতান্ত্রিক দেশের প্রধানমন্ত্রী। মনোনয়নপত্র জমা দানের শেষ দিন সোমবার দিল্লির বিখ্যাত ২৪ আকবর রোডে অবস্থিত দলের ঐতিহ্যবাহী প্রধান কার্যালয়ে এসে নিজের মনোনয়নপত্র জমা দেন গত ৫ বছর ধরে কংগ্রেসের সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসা রাহুল গান্ধী। সঙ্গে ছিলেন দলের সর্বভারতীয় ডাকসাইটে ও প্রবীণ নেতাদের প্রায় সবাই। এনডিটিভি জানিয়েছে মোট চার সেট মনোনয়ন পত্র জমা পড়েছে রাহুল গান্ধীর নামে। এর মধ্যে একটির প্রথম প্রস্তাবক তা মা সোনিয়া গান্ধী, এবং অপরটির প্রথম প্রস্তাবক সাবেক ইউপিএ সরকারের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। এছাড়া গুলাম নবী আজাদ, এ কে অ্যান্টনি, পি চিদাম্বরম, সুশীল কুমার সিন্ধে এবং আহমেদ প্যাটেল এর মত শীর্ষ কংগ্রেস নেতারা ছাড়াও দলের ব্যানারে নির্বাচিত ছয় জন তাদের মধ্যে সবচেয়ে পরিচিত মুখ পাঞ্জাবের ‍মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দার সিং। অবশ্য এই অমরিন্দার সিং কিছুদিন আগে পর্যন্তও রাহুল গান্ধীর যোগ্যতার ব্যাপারে সংশয় পোষণ করতেন। তবে এদিন তারও সমর্থন ঝরে পড়লো যুবরাজের দিকে। তিনি বলেন, রাহুল গান্ধী খুবই ভালো করবেন বলে আমি নিশ্চিত। তিনি গত বেশ কিছুদিন ধরেই খুবই ভালোভাবে সব সামলাচ্ছেন। এদিকে কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় নির্বাচন কর্তৃপক্ষের প্রধান মুলাপালি রামাচন্দ্রন বলেন, গত শুক্রবার মনোনয়ন জমাদানের প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর কেউ এখন পর্যন্ত মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার আগ্রহ দেখাননি। যদিও বিভিন্ন রাজ্যে ৯০টি আবেদনপত্র বিলি করা হয়েছে। যদি আজকে দিনের মধ্যে আর কেউ মনোনয়নপত্র দাখিল না করেন, তবে রাহুল গান্ধীকে কংগ্রেস সভাপতি হিসেবে ঘোষণা করা হবে। তার মা সোনিয়া গান্ধী কংগ্রেসের সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে থাকা কংগ্রেস সভাপতি। ১৯৯৮ সাল থেকে শুরু করে ১৯ বছর ধরে কংগ্রেস সভাপতির দায়িত্বপূর্ণ পদ সামলাচ্ছেন তিনি।

সর্বশেষ সংবাদ