January 23, 2018

বড়লেখায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে দুই সন্তানের জনক গ্রেপ্তার

Barlekha-Pic-09.11বড়লেখা প্রতিনিধি:: বড়লেখায় ৭ বছরের শিশুকন্যাকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মাহফুজ মিয়া ওরফে মাদু (২৬) নামে দুই সন্তানের জনককে ৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। ভোররাতে তাকে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। মাহফুজ মিয়া মাধবপুর উপজেলার জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে। বড়লেখা পৌর শহরের গাজীটেকা বারইগ্রাম এলাকায় একটি কলোনিতে রোববার শিশু নির্যাতনের এ ঘটনাটি ঘটে। ঘটনার পরপরই অভিযুক্ত মাহফুজ মিয়া পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শিশুর বাবা বুধবার রাতে থানায় মামলা করেন। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার বড়লেখা পৌর শহরের গাজীটেকা বারইগ্রাম এলাকার একটি কলোনির মাহফুজ মিয়ার ঘরে টেলিভিশন দেখতে যায় শিশু কন্যা (৭)। তখন মাহফুজ মিয়া জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে শিশুটির প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে মাহফুজ মিয়া পালিয়ে যায়। শিশুটির দিনমজুর পিতা বিকেলে কাজ থেকে ফিরলে ঘটনাটি জানতে পারেন। পরে ওই রাতে শিশুটিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে শিশুটিকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বুধবার রাতে শিশুর বাবা বড়লেখা থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। মামলা রুজুর পর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম ও উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরীফ উদ্দিনের নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার ভোররাতে তাকে হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলা থেকে গ্রেপ্তার করেন। বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ সহিদুর রহমান বৃহস্পতিবার বিকেলে জানান, ‘শিশুটির ডাক্তারী পরীক্ষা শেষে তার বাবা বাদী হয়ে বুধবার রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযুক্ত ব্যক্তি ঘটনার পরই পলাতক হয়। মামলা রুজুর পর হবিগঞ্জ থেকে মাহফুজ মিয়াকে গ্রেপ্তরা করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।’

সর্বশেষ সংবাদ