November 21, 2017

স্বাধীনতা-বিরোধীদের প্রেতাত্মা যেকোনো সময় ছোবল মারতে পারে

hh-20170811031144বাংলানিউজ ডেস্ক : আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি ও স্বাধীনতা-বিরোধীদের প্রেতাত্মা এখনও এদেশে রয়ে গেছে। তাদের থেকে সতর্ক থাকবেন। তারা যেকোনো সময় ছোবল মারতে পারে।

বৃহস্পতিবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলী ও সভাপতিমণ্ডলীর যৌথসভার সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সুযোগ পেলে কেউ কেউ বিকৃত ইতিহাসকে সামনে আনার চেষ্টা করে। শুধু দেশে নয়, সত্য এখন আন্তর্জাতিকভাবে প্রতিষ্ঠিত। এখন আর মানুষের কাছে বিকৃত ইতিহাস বিক্রি করা যায় না।

ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, দুর্ভাগ্য বাঙালির যারাই এ জাতির ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য কাজ করে, যারাই এদেশের মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে কাজ করে, যখনই মানুষ সুফল পেতে শুরু করে তখনই ষড়যন্ত্র আরও দানা বেঁধে ওঠে।

মুক্তিযুদ্ধের শুরুর সময়ে জিয়াউর রহমানের ভূমিকা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইতিহাস মুছে দিয়ে, আরেকজনকে ঘোষক বানিয়ে বিভ্রান্তি.. ঘোষক কাকে বানানো হলো? জাতির পিতার ডাকে সাড়া দিয়ে বেরিকেড দিচ্ছিল, ওই চট্টগ্রামে যারা বেরিকেড দিয়েছিল তাদের ওপর গুলি চালিয়েছিল, পাকিস্তানি শাসকদের পক্ষ হয়ে আন্দোলনরত এবং সংগ্রামরত মানুষকে হত্যা করেছিল জিয়াউর রহমান।

তিনি বলেন, ১৫ আগস্টের কালো দিবস না যদি না আসত তবে ১০ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত সমৃদ্ধ হত। সরকারের ধারাবাহিকতা থাকলে উন্নয়নের ছোয়া, সুফল মানুষ পায়। আজকে তা মানুষ দেখেছে।

সর্বশেষ সংবাদ