November 21, 2017

সিলেটের জালালাবাদ ও সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর থেকে দেশীয় পাইপ গান, ০৫রাইন্ড গুলি ও ০১টি ছুরিসহ ০৩ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৯

5র‌্যাব প্রতিষ্টা লগ্ন থেকেই সমাজের বিশৃংখলা সৃষ্টিকারী, জঙ্গি তৎপরতা, অস্ত্র ব্যবসায়ী, ডাকাতি ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ বজায় রেখেছে। অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও আইনের আওতায় আনার জন্য র‌্যাবের গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে। এর ধারাবাহিকতায় ১৭ জুলাই ২০১৭ ইং তারিখ ১৬৫০ ঘটিকায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, সদর কোম্পানী, সিলেট ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল সিলেট জেলার জালালাবাদ থানা একালায় অভিযান পরিচালনা করে। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-৯, জানতে পারে যে, ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে অস্ত্র চোরাচালান করে কতিপয় ব্যক্তি দীর্ঘদিনধরে অস্ত্র কেনাবেচা করছে। তারা বিভিন্ন গ্রুপের মাধ্যমে অস্ত্র বেচাকেনা ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালাচ্ছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করে । র‌্যাবের উপস্থিতি টেরপেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যাওয়ার সময় জালালাবাদ থানার পাকা রাস্তার উপর থেকে দুই জন অস্ত্রধারী অভিযুক্তকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব-৯। গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের নাম ও ঠিকানা -১, মোঃ হাসান আলী (২৮) পিতা মোঃ মিছির আলী, গ্রাম-মোল্লর গাঁ, থানা-জালালাবাদ, জেলা- সিলেট । ২,মোঃ ফরিদ উদ্দিন , পিতা মোঃ মনফুর আলী, গ্রাম- লালারগাঁ, থানা-জালালাবাদ, জেলা- সিলেট। অভিযুক্ত ব্যক্তিদের নিকট থেকে এশটি ছুরি, এশটি দেশীয় তৈরি পাইপগান ০১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করতে সক্ষম হয় র‌্যাব-৯। অপর আরেক অভিযানে ১৬৫০ ঘটিকার সময় সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর থানাধীন ইসলামপুর বাজারস্থ ভাই ভাই রেষ্টুরেন্ট এর সামনে রাস্তার উপর  একজন অভিযুক্তকে ধৃত পূর্বক চ্যালেঞ্জ করি। তাকে  তল্লাশীকালে (ক) একটি দেশীয় তৈরী পাইপগানসহ ০৪ রাউন্ড গুলিসহ আটক করতে সক্ষম হয় র‌্যাব-৯। আটককৃত ব্যক্তির নাম ও ঠিকানা ১, শফিক মিয়া (২৮), পিতা-মকলেছ মিয়া, গ্রাম- ইসলামপুর বামন গাঁ, থানা- জগনাথপুর , জেলা- সুনামগঞ্জ। গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় য়ে গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিরা পেশাদার অস্ত্রধারী ছিনতাইকারী বলে স্বীকার করে। তারা নিজ নিজ এলাকায় ত্রাস ও কুখ্যাত সন্ত্রাসী নামে পরিচিতি। তাদের গ্রেফতার করায় এলাকাবাসী স্বস্তি প্রকাশ করেছে। উদ্ধারকৃত অস্ত্র, গুলিসহ গ্রেফতারকৃত ১নং ও ২নং আসামীকে সিলেটের জালালাবাদ থানায় এবং ৩ নং আসামীকে সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ